According to / তাবেয়ী কারা, তাবে-তাবেয়ী কারা ?

প্রশ্ন
প্রশ্ন: তাবেয়ী কারা, তাবে-তাবেয়ী কারা?

তাবেয়ী কারা, তাবে-তাবেয়ী According to কারা
উত্তর
সমস্ত প্রশংসা আল্লাহর জন্য। এক: তাবেয়ী

According to

According to

More Post

তাবেয়ী হচ্ছেন- যারা নবুয়তি যুগের পরে এসেছেন। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে দেখেননি। কিন্তু সাহাবায়ে কেরামের সঙ্গ পেয়েছেন। তাবে-তাবেয়ী হচ্ছেন- যারা রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের সাহাবীগণের সাক্ষাত লাভ করেনি;

তাবেয়ীগণের সাক্ষাত লাভ করেছেন এবং তাঁদের সঙ্গ পেয়েছেন। উলুমুল হাদিস এর পরিভাষায়- তাবেয়ী হচ্ছেন: যিনি সাহাবীর সাক্ষাত পেয়েছেন তিনি তাবেয়ী। বিশুদ্ধ মতানুযায়ী, এর জন্য দীর্ঘদিনের সঙ্গ শর্ত নয়। তাবেয়ী

অতএব, যিনি সাহাবীর সাক্ষাত পেয়েছেন এবং ঈমানের সাথে মৃত্যুবরণ করেছেন তিনিই তাবেয়ী। তাবেয়ীর মধ্যে উত্তমতার স্তরভেদ রয়েছে।

হাফেয ইবনে হাজার (রহঃ) ‘নুখবাতুল ফিকার’ (৪/৭২৪) গ্রন্থে বলেন: তাবেয়ী হচ্ছেন- যিনি সাহাবীর সাক্ষাত পেয়েছেন। সমাপ্ত। ইবনে কাছির (রহঃ) বলেন: খতিব আল-বাগদাদী বলেন: তাবেয়ী হচ্ছেন যিনি সাহাবীর শিষ্য ছিলেন।

হাকেমের বক্তব্যের দাবী হচ্ছে- যিনি সাহাবীর সাক্ষাত পেয়েছেন তাকে তাবেয়ী বলা যাবে। তাঁর থেকে এ কথাও বর্ণিত আছে যে, যদিও সাহাবীর শিষ্যত্ব না পেয়ে থাকুক না কেন? সমাপ্ত। ইরাকী (রহঃ) তাঁর ‘আলফিয়া’ (পৃষ্ঠা-৬৬) তে বলেন: তাবেয়ী

তাবেয়ী হচ্ছেন- যিনি সাহাবীর সাক্ষাত পেয়েছেন। তাবে-তাবেয়ীন হচ্ছেন তাঁরা যারা তাবেয়ীগণের সাক্ষাত পেয়েছেন; সাহাবীগণকে পায়নি। তাবেয়ীগণের উদাহরণ হচ্ছে- সাঈদ ইবনে আল-মুসায়্যিব,

উরওয়া ইবনে যুবাইর, হাসান বসরী, মুজাহিদ ইবনে জাবর, সাঈদ ইবনে যুবায়ের, ইবনে আব্বাসের ক্রীতদাস ইকরিমা, ইবনে উমরের ক্রীতদাস নাফে।

তাবে-তাবেয়ীগণের উদাহরণ হচ্ছে- ছাওরী, মালেক, রাবিআ, ইবনে হুরমুয, হাসান ইবনে সালেহ, আব্দুল্লাহ ইবনে হাসান, ইবনে আবু লাইলা, ইবনে শুবরুমা, আল-আওযায়ী। দুই:

ইমাম বুখারী (৩৬৫১) ও ইমাম মুসলিম (২৫৩৩) ইবনে মাসউদ থেকে বর্ণনা করেন যে, নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন: “সর্বোত্তম মানুষ হচ্ছে- আমার প্রজন্ম। এরপর তাদের পরে যারা। এরপর তাদের পরে যারা। তাবেয়ী

অতঃপর এমন কওম আসবে যাদের সাক্ষ্য হলফের পিছনে, হলফ সাক্ষ্যের পিছনে ছুটাছুটি করবে।” ইমাম নববী বলেন:

বিশুদ্ধ মতানুযায়ী নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের প্রজন্ম হচ্ছে-সাহাবায়ে কেরাম। দ্বিতীয় প্রজন্ম হচ্ছে- তাবেয়ীগণ। তৃতীয় প্রজন্ম হচ্ছে- তাবে-তাবেয়ীগণ।

[ইমাম নববী রচিত সহিহ মুসলিমের ব্যাখ্যাগ্রন্থ (১৬/৮৫) থেকে সমাপ্ত] হাফেয ইবনে হাজার বলেন:

হাদিসের বাণী: “এরপর তাদের পরে যারা” অর্থাৎ তাদের পরের প্রজন্ম। তারা হচ্ছেন- তাবেয়ীগণ। “এরপর তাদের পরে যারা”। তারা হচ্ছেন- তাবে-তাবেয়ীগণ। ফাতহুল বারী (৭/৬) থেকে সমাপ্ত।

ক্বারী (রহঃ) বলেন:

সুয়ুতী বলেন: বিশুদ্ধ মতানুযায়ী এটি অর্থাৎ প্রজন্ম বিশেষ কোন সময়সীমাতে আবদ্ধ নয়। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের প্রজন্ম হচ্ছে- সাহাবায়ে কেরাম।

নবুয়তের শুরু থেকে সর্বশেষ সাহাবীর মৃত্যু পর্যন্ত ১২০ বছর এ প্রজন্মের সময়কাল। তাবেয়ী-প্রজন্মের সময়কাল ১০০ হিঃ থেকে ৭০ বছর। আর তাবে-তাবেয়ী প্রজন্মের According to সময়কাল এরপর থেকে ২২০ হিঃ পর্যন্ত। তাবেয়ী

এ সময়ে ব্যাপকভাবে বিদআতের উদ্ভব ঘটে। মুতাযিলারা তাদের মুখের লাগাম খুলে দেয়। দার্শনিকেরা মাথা ছাড়া দিয়ে উঠে। দ্বীনদার আলেমগণকে “কুরআন আল্লাহর সৃষ্টি” এই মতবাদ মেনে নেয়ার জন্য চাপ দেয়া হয়।

এভাবে গোটা পরিস্থিতি ওলট পালট যায়। এভাবে আজ অবধি দ্বীনদারি হ্রাস পেতেই আছে। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের বাণীর বাস্তব নমুনা যেন ফুটে উঠেছে- “এরপর মিথ্যা ব্যাপক হারে দেখা দিবে”। ‘মিরকাতুল মাফাতিহ’ (৯/৩৮৭৮) গ্রন্থ থেকে সমাপ্ত।

আল্লাহই ভাল জানেন।

question
Question: Who are Tabei, who are Tabe-Tabei?

Who are Tabei, who are Tabe-Tabei
the answer
All praise is due to Allah. one: তাবেয়ী

The Tabee’s are those who came after the prophetic era. He did not see the Prophet (peace and blessings of Allah be upon him). But the Companions got the company of Keram. The followers are those who did not meet the companions of the Prophet, may God bless him and grant him peace;

met the Tabee’s and had their company. In terms of Ulumul Hadith – Tabeeee is: The one who meets the Sahabah is Tabeeee. According to pure opinion, long association is not a condition for this. Therefore, the one who met the Sahabah and died with faith is the Tabeeee. There are levels of excellence in Tabee’i.

Hafeez Ibn Hajar (RA) said in the book ‘Nukhbat al-Fiqar’ (4/724): Tabeeee is the one who met the Sahabah. finished Ibn Kathir (RA) said: Khatib Al-Baghdadi said: Tabeeee is the one who was a disciple of the Sahabi. Hakem’s claim is that he who has met the Companions can be called a Tabee. তাবেয়ী

It is also narrated from him that even if the companion did not get the discipleship? finished Al-Iraqi (RA) said in his ‘Alfia’ (page-66):

Tabei is the one who met the Sahabah. The Tabe-Tabeyin are those who have met the Tabees; Did not find the companions. Examples of the Tabees are – Saeed Ibn Al-Musayyib, Urwa Ibn Jubair, Hasan Basri, Mujahid Ibn Jabar, Saeed Ibn Jubair, Ibn Abbas’ slave Ikrimah, Ibn Umar’s slave Nafe. Examples

of Tabi-Tabayi are – Shaori, Malek, Rabi’a, Ibn Hurmuz, Hasan Ibn Saleh, Abdullah Ibn Hasan, Ibn Abu Laila, Ibn Shubruma, Al-Awazai. Two:

Imam Bukhari (3651) and Imam Muslim (2533) narrate from Ibn Mas’ud that the Prophet, may God bless him and grant him peace, said: “The best of people is my generation. Then those after them.

Then those after them. Then there will come a people whose testimony is behind the oath, running after the oath.” Imam Nawabi said:

According to the pure opinion, the generation of the Prophet sallallahu alaihi wa sallam is – Companions. The second generation is the Tabees. The third generation is the Tabe-Tabeys. তাবেয়ী

[Concluded from Commentary on Sahih Muslim (16/85) by Imam Nawabi] Hafez Ibn Hajar said:

The words of the hadith: “Then those after them” i.e. the generation after them. They are the followers. “Then those after them”. They are Tabe-Tabey. Concluded from Fathul Bari (7/6).

Al-Qari (RA) said:

Suyuti says: According to the pure view this means that generation is not bound by any particular period. The generation of the Prophet sallallahu alaihi wa sallam is the Companions. The period of this generation is 120 years from the beginning of Prophethood to the death of the last Companion.

The period of Tabee’i generation is 100 AH to 70 years. According to And Tabe-Tabey generation period from then till 220 AH. At this time, heresy arose widely. The Mu’tazilites unbridled their mouths.

Philosophers rise up without heads. Religious scholars are pressured to accept the doctrine that the Qur’an is God’s creation. In this way the whole situation changes completely.

In this way, religion continues to decline till today. The real example of the words of the Prophet sallallahu alaihi wa sallam has emerged – “Afterwards lies will appear at a large rate”. Completed from the book ‘Mirkatul Mafatih’ (9/3878).

Allah knows best.